Loading...

Blog Head Ads

উত্তর কোরিয়ার স্কুলের 5টি অদ্ভুদ নিয়ম । Strange Rules of North Korean School

কিম জং উন, Kim Jong-un


উত্তর কোরিয়া (North Korea), দেশটিকে কে-ই বা আবার না চিনে। বিশ্বের সবচেয়ে বাজে দেশ হিসেবে পরিচিত এই দেশটি কারণ এখানে বসবাসকারী জনগণের কোন ধরনের স্বাধীনতা নেই। সরকার পুরোপুরিভাবে জনগণকে নিয়ন্ত্রিত করে রেখেছে। উত্তর কোরিয়ার স্কুলে কি কি নিয়ম রয়েছে এবং সেখানে কি কি নিয়ম পালন করতে হয় আমরা এই বিষয়েই জানবো। 

১। আমরা তো সবাই জানি আমাদের স্কুল গুলোতে ইতিহাস বিষয়ে আসলে কি পড়ানো হয়, আমরা আমাদের পূর্ব রাজাদের জীবন কাহিনী ও যুদ্ধের জয় পরাজয় সম্পর্কে জেনে থাকি কিন্তু, উত্তর কোরিয়ার ইতিহাস ক্লাস শুধু মাত্র কোরিয়ার নেতা সম্পর্কে পড়ানো হয়। প্রথমে স্কুলে পড়ানো হয় কিম জং উন (Kim Jong-Un) এর জীবনী। তিনি কতটা ভালো মানুষ, ছেলেবেলা থেকে এখন পর্যন্ত কি কি ভাল কাজ করেছেন এই সকল বিষয়ে পাঠদান পড়ানোর হয় এবং এগুলোর পর কিম জং উন এর পূর্বপুরুষ সম্পর্কে এবং তার-ও পূর্বপুরুষ সম্পর্কে পড়ানো হয়। 

২। উত্তর কোরিয়ার স্কুলের বাচ্চাদের শুধুমাত্র কিম জং উনের চুলের কাটিং ব্যবহার করতে হয় অন্য কোন কাটিং দেয়া যাবে না, আর কেউ যদি সেটা মানতে না চায় তবে তার পরিনিতি হয় খুব কঠোর তবে এক্ষেত্রে মেয়েরা চাইলে মেয়েদের জন্য নির্ধারিত ১৫ টি চুলের স্টাইল ব্যবহার করতে পারবে। 

৩। উত্তর কোরিয়ার স্কুলে যাওয়া মানেই হচ্ছে মিলিটারি ট্রেনিং শুরু। স্কুলে যাওয়ার পর পাঁচ বছর বয়সেই মিলিটারি প্রশিক্ষণ শুরু করা হয়, কেউ যদি এই প্রশিক্ষণ নিতে আগ্রহী না হয় তাহলে তাকে দেয়া হয় অন্য কোন অপশন তবে সেখান থেকে যেটাই পছন্দ করুক তা মিলিটারি ট্রেনিং এর-ই অংশবিশেষ। 

৪। স্কুলে সাধারণত স্টুডেন্ট যদি সমস্যায় পড়ে তাহলে সেটা অভিভাবককে জানিয়ে বাসায় চলে যেতে পারে, কিন্তু উত্তর কোরিয়ার স্টুডেন্ট তো দূরের কথা চাইলে শিক্ষকরাও নির্দিষ্ট সময়ের আগে চলে যেতে পারবে না। এমনকি খাবার-দাবার পর্যন্ত স্কুলে করতে হয় এবং নির্দিষ্ট সময়ে স্কুল থেকে বের হতে হয়। 

৫। উত্তর কোরিয়ার শিক্ষক এবং ছাত্র ছাত্রী উভয়কেই কিছু বিশেষ নিয়ম মানতে হয় সেটা হচ্ছে, শিক্ষক যদি সিলেবাসের বাইরে কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা করে তাহলে অবশ্যই শিক্ষার্থীরা অথরিটিকে ইনফর্ম করবে এবং শিক্ষকরা যদি অন্য দেশের বিষয়ে আলোচনা অথবা উত্তর কোরিয়ায় অনুমতি নেই এমন কোন আলাপ-আলোচনা করে তাহলেও শাস্তি পেতে হবে। 

স্কুলের অদ্ভুত কিছু নিয়ম আপনার কাছে কেমন লাগলো তা আমাদেরকে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না, ধন্যবাদ।

No comments:

Powered by Blogger.